Saturday April 20, 2019

পেশীতে টান ধরলে যা করবেন

129 পেশীতে টান ধরলে যা করবেন

ঘুমের মধ্যে বা হঠাৎ হাঁটতে গিয়ে পায়ের পেশীতে টান বা হঠাৎই পেশী শক্ত হয়ে যায়? এই সমস্যা অনেকেরই দেখা যায়। পেশীর টানের এই যন্ত্রণা বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই খুব কম সময়ের জন্য হয়। কিন্তু পেশীতে মাসাজ বা বরফ সেঁক দেওয়ার পর তা কমলেও এই ব্যথা র প্রভাব থেকে যায় সারা দিন।

চিকিৎসকদের মতে, শরীরে ল্যাকটিক অ্যাসিড জমে যাওয়া, কখনো টোকোফেরল, ভিটামিন ডি, ভিটামিন ই, ভিটামিন এ-র অভাব, পটাশিয়ামের স্বল্পতা এই মাসল ক্র্যাম্প বা পেশীর টানের কারণ। তবে শিশুদের ক্ষেত্রে বেড়ে ওঠার সময়ও এমন লক্ষণ দেখা যায়। কোনো কোনো শিশুর হাড়ের বৃদ্ধির সঙ্গে পেশীর বৃদ্ধি সমতা বজায় থাকে না। তখনই পেশীতে টান ধরে।

এমন পেশীর টানের প্রবণতা তুলনামূলক ভাবে শীতে বাড়ে। তবে কিছু বিষয় মাথায় রাখলে তা এড়িয়ে চলাও যায়। জেনে নিন সে সব বিষয়গুলো যা আপনাকে মাথায় রাখতে হবে।

পেশীর টানের অন্যতম কারণ শরীরে টক্সিন, ল্যাকটিক অ্যাসিড ইত্যাদি জমে যাওয়া। তাই শরীরচর্চা বন্ধ করবেন না। প্রথম প্রথম শরীরচর্চা শুরু করার কারণে পেশীর শক্তি ক্ষয় বেশি হয়। তাই পেশীতে টান ধরতে পারে। সে ক্ষেত্রে টানের ব্যথা কমলে শরীরচর্চায় ফিরুন। তবে ব্যায়াম বা শরীরচর্চা বন্ধ করে দেবেন না।

ডায়েটে রাখুন কলা, আমন্ড, দুগ্ধজাত দ্রব্য, গাজর, বিনস ইত্যাদি। ভিটামিন এ, ডি এবং ই, পটাশিয়াম সমৃদ্ধ খাবার পেশীর টান কমায়। পেশীকে স্বাভাবিক অবস্থায় আনতে বরফ সেঁক দিন।

পেশীর টান ধরলে আক্রান্ত জায়গায় বরফ সেঁক দিন। দ্রুত মাসাজ করে পেশীকে শিথিল করে তুলুন। শিশুদের ঘন ঘন পেশীতে টান ধরলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

Filed in: স্বাস্থ্য