Wednesday October 17, 2018

আজ যাত্রা সম্রাট অমলেন্দু বিশ্বাসের ৯৪তম জন্মদিন

1247 আজ যাত্রা সম্রাট অমলেন্দু বিশ্বাসের ৯৪তম জন্মদিন

যাত্রা সম্রাট অমলেন্দু বিশ্বাসের আজ ৯৪তম জন্ম দিন। তিনি ১৯২৫ সালের ২৯ মে তৎকালীন বার্মা বর্তমানে মিয়ানমারে  জন্মগ্রহণ করেন। পিতার কর্মসূত্রে বার্মায় অবস্থান কালে সেখানে তার জন্ম হয়। অমলেন্দু বিশ্বাসের পৈতৃক নিবাস চট্টগ্রাম জেলার সীতাকুন্ড উপজেলার মসজিদিয়া গ্রামে। তার বাবা সুরেন্দ্রলাল বিশ্বাস, তার মা জ্ঞানদা দেবী।

বাবা ইয়াংগুনে কাস্টমস বিভাগে চাকরি করতেন। কিশোর বয়সে তিনি বাবার সঙ্গে বাংলাদেশের চট্টগ্রামে চলে আসেন। ১৯৪১ সালে প্রবেশিকা পরীক্ষা দিয়ে প্রথমে কলকাতায় ইন্ডিয়ান এয়ারফোর্সে যোগ দিয়েছিলেন। পরে কিছু দিন পুলিশ-এ কাজ করেন। ১৯৪৪ সালে রবার্টসন কলেজ থেকে এফএ পাস করেন। বাংলাদেশে চলে আসেন ১৯৪৭ সালে। তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান রেলওয়েতে হিসাব বিভাগে চাকরি পেলেন। পাকিস্তান আমলে আইয়ুববিরোধী আন্দোলনে যোগ দেওয়ার জন্য তার বিরুদ্ধে পুলিশের হুলিয়া জারী হয়েছিল। তার স্ত্রী জ্যোৎস্না বিশ্বাস বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় যাত্রা অভিনেত্রী। অমলেন্দু বিশ্বাসের কন্যা অরুণা বিশ্বাস পুরস্কারপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র অভিনেত্রী।

১৯৩৭ সালে যখন তিনি সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র তখন দাতা হরিশ্চন্দ্র নাটকে প্রথম অভিনয় করেন। ইন্ডিয়ান এয়ারফোর্সে কর্মরত অবস্থায় জব্বলপুরের মিলিটারী সদর দপ্তরে বেঙ্গলী ক্লাবে নাটকে অভিনয় করতেন। পাকিস্তান রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার পর তিনি চট্টগ্রামে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। এ সময় তিনি  স্থানীয় নাটকে অভিনয় করতে শুরু করেন। ১৯৫৪ সালে চট্টগ্রামে প্রতিষ্ঠিত বাবুল থিয়েটারে তিনি বহু নাটকে অভিনয় করেন। ১৯৬১ সালে তিনি যাত্রায় অভিনয় শুরু করেন বাসন্তী অপেরায় যোগ দিয়ে। মধুসূদন, জানোয়ার, লেনিন, অচল পয়সা, সন্ন্যাসী, সিরাজদ্দৌলা, সম্রাট জাহাঙ্গীর প্রভৃতি যাত্রাপালায় নায়কের ভূমিকায় অভিনয় করে দেশব্যাপী খ্যাতি অর্জন করেন।

দেশে যাত্রা শিল্পে অনন্য ভূমিকা রাখার স্বীকৃতি হিসেবে অমলেন্দু বিশ্বাস বাচসাস সিকোয়েন্স পুরস্কার, শিল্পকলা একাডেমী পুরস্কার এবং  একুশে পদক (মরণোত্তর) এ ভূষিত হয়েছেন। ১৯৮৭ সালের ১৩ অক্টোবর এই মহান যাত্রা শিল্পী মৃত্যুবরণ করেন।

Filed in: সাহিত্য সংস্কৃতি