Sunday October 19, 6988

জেনে নিন পারফেক্ট স্বামী চেনার উপায়

1111 জেনে নিন পারফেক্ট স্বামী চেনার উপায়মহিলারা সব সময়েই বিয়ের ব্যাপার নিয়ে একটু বেশি চিন্তিত থাকেন। কারণ মহিলাদের সব সময়েই নিজের সব কিছু ছেড়ে শ্বশুরবাড়ি চলে যেতে হয়। সেখানে পরিবার যেমনই হোক না কেন স্বামী যদি ভালো না হোন কিংবা তার মন-মানসিকতা যদি ভালো না হয় তাহলে পুরো জীবন কষ্ট করতে হয় একজন মহিলাকেই। একারণে মেয়ের অভিভাবক থেকে শুরু করে সকলেরই পরিবারের মেয়েটির স্বামী নিয়ে এক ধরণের ভীতি কাজ করে।

এক্ষেত্রে কিছু বৈশিষ্ট্য বা গুণাবলী দেখে নেওয়া যেতে পারে। পুরুষের মধ্যে বিশেষ কিছু গুণ থাকলে বলে দেওয়া যেতে পারে ভবিষ্যতে তিনি কেমন ধরণের স্বামী হবেন এবং তার স্ত্রীকে তিনি কীভাবে রাখতে পারবেন। পেতে চান এমন ধরণের পুরুষের খোঁজ? চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক কোন ধরণের পুরুষ হতে পারবেন একেবারে পারফেক্ট স্বামী।

১) যিনি নিতে নয় দিতে বেশি পছন্দ করেন
এই ধরণের পুরুষের কাছে নিজের চাইতে বেশি তার পরিবার। সবসময় পরিবারের প্রয়োজন আগে তার নজরে পড়ে। তিনি প্রথমে ভাবেন তার কথা যিনি তাকে সুখে রাখার চেষ্টায় মগ্ন রয়েছেন। এইধরনের মানুষ অনেক বেশি খোলা মনের হয়ে থাকেন। তার কখনোই স্বার্থপর হতে পারেন না। তিনি পরিবারের প্রয়োজনকে সামনে রেখে নিজের দায়িত্ব পুরোপুরি পালন করে যেতেই পছন্দ করেন।
কেন তিনি স্বামী হিসেবে পারফেক্ট: এই ধরণের পুরুষ স্বামী হিসেবে একেবারে পারফেক্ট। কারণ, তিনি পরিবার সুখে রাখতে জানেন এবং আপনাকে বলে দিতে হবে না আপনার কি কি প্রয়োজন, তিনি নিজেই নজর করে তা আপনার সামনে হাজির করবেন।

২) দ্রুত সমস্যা সমাধানের ক্ষমতা সম্পন্ন পুরুষ
এই ধরণের মানুষের কাছে জীবনের যতো সমস্যাই আসুক না কেন তিনি তা পার করে যাওয়ার ক্ষমতা রাখেন। এমনকি তিনি বেশ দ্রুত সমস্যা সমাধানেও পটু থাকেন। তার সামনে কোনও সমস্যাই সমস্যা নয় শুধু সমাধান করার একটি রোডম্যাপ। তিনি অনেক শান্ত-শিষ্ট এবং ঠাণ্ডা মাথায় চিন্তা করার মানুষ।
কেন তিনি স্বামী হিসেবে পারফেক্ট: এই ধরণের মানুষ সবচাইতে পারফেক্ট স্বামী এই কারণে যে, আপনাদের মধ্যে কোনো সমস্যা হলে তিনি মোটেও রিঅ্যাক্ট করবেন না বরং তিনি খুব শান্তভাবে ভেবে দেখবেন সব কিছু এবং সমাধান করার চেষ্টা করবেন। এছাড়াও জীবনে যতো সমস্যাই আসুক না কেন তার আঁচ কিন্তু আপনাকে পোহাতে হবে না। কারণ তিনি নিজে থেকেই সব সমাধান করে ফেলতে পারবেন।

৩) অনেক আশাবাদী পুরুষ
এই ধরণের পুরুষেরা কখনোই হতাশ হন না, কোনো বিফলতাতেই নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস হারিয়ে পড়ে থাকেন না। এমনকি যখন কেউই আর আশা রাখতে পারেন না তখনও তিনি আশার হাল ধরে রেখে জীবনে এগিয়ে চলেন। এবং তার এই হাল ধরে থাকাই তার জীবনের সবচাইতে ভালো গুণ যা তাকে প্রতিটি বিষয়ে সফলতা দিয়ে থাকে।
কেন তিনি স্বামী হিসেবে পারফেক্ট: এইধরনের পুরুষেরা পারফেক্ট স্বামী হতে পারেন। কারণ তিনি একজন যোদ্ধা, তিনি হার মেনে নিতে জানেন না, তিনি আশাও ছাড়েন না। এইধরনের মানুষেরা অনেক বেশি আবেগিও হয়ে থাকেন। তিনি আপনার জন্য যুদ্ধও করে যেতে পারেন সারাজীবন এবং আপনার প্রতি তার আবেগও থাকবে সীমাহীন।

৪) হাসিখুশি পুরুষ
মন খারাপ কি জিনিস বা বোরিং লাগা কোন ব্যাপার তা এই ধরণের মানুষেরা জানেন না। তাদের কাছে জীবনটা অনেক বেশি উপভোগের ব্যাপার। প্রথম দেখায় তাদেরকে জীবন সম্পর্কে খুব বেশি চিন্তিত না মনে হলেও সত্যিকার অর্থে এরা জীবন নিয়ে অনেক বেশি চিন্তিত থাকেন। কারণ তারা জীবনটাকে নিজের মতো করে সাজিয়ে হাসিখুশি থাকতে চান
কেন তিনি স্বামী হিসেবে পারফেক্ট: এইধরনের মানুষের সাথে জীবন কাটানো অনেক বেশি আনন্দময়। আপনি কখনো কষ্টটা টের পাবেন না, তিনি শত কষ্টের মাঝেও আপনার মুখে হাসি ফোটাতে সক্ষম একজন মানুষ হবেন। তিনি আপনার মাঝে দুশ্চিন্তার ছিটে ফোটাও আসতে দেবেন না, সারাজীবন হাসিমুখে পার করে দিতে পারবেন এই ধরণের মানুষটির সাথে।

৫) দৃঢ় মানসিকতার পুরুষ
যতো ঝড় ঝাঁপটাই আসুক না কেন এই ধরণের পুরুষেরা একেবারেই ভেঙে পড়েন না। নিজের দৃঢ় মানসিকতা নিয়ে তিনি অনেক বেশি প্রেরণা যুগিয়ে চলেন সকলের মাঝে। অনেক বেশি খোলা মনের হয়ে থাকেন এবং সাপোর্ট দিতে পারেন তারা।
কেন তিনি স্বামী হিসেবে পারফেক্ট: এই ধরণের পুরুষেরা পারফেক্ট স্বামী হন কারণ তারা তাদের জীবনসঙ্গিনীর প্রতি অনেক বেশি বিশ্বস্ত থাকেন। এবং সঠিক জিনিসে সাপোর্ট দিতে তারা একেবারেই পিছ পা হন না। সবসময় স্ত্রীকে প্রেরণা যুগিয়ে চলার মতোই মানুষ এই ধরণের পুরুষেরা।

Filed in: লাইফ স্টাইল