Wednesday June 26, 2019

পায়ে ফোঁড়া ওঠায় আদালতে হাজির হননি খালেদা

126 পায়ে ফোঁড়া ওঠায় আদালতে হাজির হননি খালেদা

গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া অস্থায়ী বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসার আদালতে উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও, পায়ে ফোঁড়া ওঠার কারণে তিনি আদালতে উপস্থিত হতে পারেননি।

বুধবার (১৬ জানুয়ারি) গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদাকে আদালতে হাজির করার দিন ধার্য ছিল। তবে খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির না করে আদালতে কাস্টরি ওয়ারেন্ট পাঠায় কারা কর্তৃপক্ষ। কাস্টরি ওয়ারেন্টে উল্লেখ করা হয়, খালেদা জিয়া শারীরিকভাবে অসুস্থ, তাই তাকে আদালতে উপস্থিত করানো যায়নি।

এ বিষয়ে আদালতের শুনানিতে দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, খালেদা জিয়ার পায়ে ফোঁড়া ওঠায় তাকে আদালতে আনা সম্ভব হয়নি। তাই কারা কর্তৃপক্ষ কাস্টরি ওয়ারেন্ট পাঠিয়েছে।

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে পুরান ঢাকার আলিয়া মাদরাসা মাঠে অবস্থিত ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩ আবু সৈয়দ দিলদার আগামী ২৪ জানুয়ারি নতুন করে শুনানির দিন ধার্য করেন। একই সঙ্গে ওইদিন মামলার সকল আসামিকে আদালতে হাজির করার নির্দেশ দেন।

গত ১০ জানুয়ারি খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করার জন্য প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট (হাজিরা পরোয়ানা) জারি করেন পুরান ঢাকার আলিয়া মাদরাসা মাঠে অবস্থিত ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩ এর বিচারক আবু সৈয়দ দিলদার।

২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপ-পরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী সাবেক চার দলীয় জোট সরকারের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া, তার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে তেজগাঁও থানায় এ মামলা করেন। মামলার পরদিন খালেদা জিয়া ও কোকোকে গ্রেফতার করা হয়।

ওই বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর মামলাটি অন্তর্ভুক্ত করা হয় জরুরি ক্ষমতা আইনে। পরের বছর ১৩ মে খালেদা জিয়াসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে এ মামলায় অভিযোগপত্র দেয়া হয়।

মামলার অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গ্যাটকোকে ঢাকার কমলাপুর আইসিডি ও চট্টগ্রাম বন্দরের কনটেইনার হ্যান্ডলিংয়ের কাজ পাইয়ে দিয়ে রাষ্ট্রের ১৪ কোটি ৫৬ লাখ ৩৭ হাজার ৬১৬ টাকার ক্ষতি করেছেন।

Filed in: রাজনীতি