Wednesday October 17, 2018

গাজীপুরে শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা

171 গাজীপুরে শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বারবৈকা শাহ আলম বাড়ি এলাকার একটি জঙ্গল থেকে সাড়ে তিন বছর বয়সী এক কন্যাশিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ জুলাই) রাতে মৃত অবস্থায় শিশু খাদিজাকে উদ্ধার করা হয়।

শিশুটিকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।

শিশুটির স্বজনদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয় হায়দার আলীর একমাত্র মেয়ে খাদিজা। উদ্বিগ্ন হয়ে অনেক জায়গায় খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে সন্ধ্যার দিকে বাড়ির পাশের জঙ্গলে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় খুঁজে পান স্থানীয়রা। জঙ্গল থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে রাত সাড়ে ৭টার দিকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক খাদিজাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জয়দেবপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবদুর রহমান জানান, রাতে খাদিজার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। তার নিচের ঠোঁট কাটা ও গলায় কালো দাগ রয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে উল্লেখ করে এসআই বলেন, ধারণা করা হচ্ছে জঙ্গলে নিয়ে শিশুটিকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ ও মাথায় আঘাত করে হত্যা করা হয়েছে। তবে ময়নাতদন্তের পর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে বায়েজিদ নামের স্থানীয় এক যুবককে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সঙ্গে তাঁর জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেছে বলে জানান এসআই। তিনি আরো জানান, এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের কার্যক্রম চলছে।

Filed in: নারী ও শিশু