Thursday December 13, 2018

৪২ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানকে জনপ্রশাসন পদক :লাল ফিতার দৌরাত্ম্য যেন না থাকে : প্রধানমন্ত্রী

1104   ৪২ ব্যক্তি প্রতিষ্ঠানকে জনপ্রশাসন পদক :লাল ফিতার দৌরাত্ম্য যেন না থাকে : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘জনসেবায় লাল ফিতার দৌরাত্ম্য যেন না থাকে। জনগণ যাতে দুর্ভোগে না পড়েন। অহেতুক কোনো প্রকল্পও নেওয়ার দরকার নেই।’

সোমবার (২৩ জুলাই) রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জাতীয় পাবলিক সার্ভিস দিবস উদযাপন ও জনপ্রশাসন পদক প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

এদিন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সরকারি কর্মচারীদের মধ্যে জনপ্রশাসনে উদ্ভাবনী ধারণাকে কাজে লাগিয়ে নাগরিক সেবা সহজীকরণের স্বীকৃতিস্বরূপ ৩৯ ব্যক্তি ও ৩ প্রতিষ্ঠানকে ‘জনপ্রশাসন পদক-২০১৮’ এই পদক ও সম্মাননা স্মারক তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা এগিয়ে যেতে চাই। সমৃদ্ধ হতে চাই। নতুন নতুন উপায় উদ্ভাবন করে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। জনবেসায় প্রয়োগ করতে হবে। জনকল্যাণ নিশ্চিত করতে হবে। এজন্য সরকার ইনোভেশন প্রকল্পও নিয়েছে। সরকারি কর্মকর্তারা অবশ্যই মেধাবী। মেধাবী বলেই তারা চাকরি পেয়েছেন। তাদেরকে উদ্ভাবনী শক্তি নিয়ে নিজ নিজ ক্ষেত্রে অবদান রাখতে হবে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা রাজধানীবাসীর দুর্ভোগ কমাতে মেট্রোরেল করছি। আমাদের সক্ষমতাও বেড়েছে। মানুষষের যাতে সার্বিক উন্নয়ন তার কথা বলেছেন জাতির পিতা। তার রাজনীতি ছিল মানুষের উন্নয়ন করা। সেই লক্ষে তিনি স্বাধীনতা অর্জন করেন।’

জনপ্রশাসন পদক পেলেন ৪২ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান

নতুন প্রজন্মের কাছে বঙ্গবন্ধুর ভাষণচর্চার উদ্যোগ নেওয়ায় জাতীয় পর্যায়ে এবার ব্যক্তিগত শ্রেণীতে জনপ্রশাসন পদক পান ময়মনসিংহের ভালুকার সাবেক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং বর্তমানে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সহকারী সচিব কামরুল আহসান তালুকদার। একই শ্রেণীতে পদক পান গাজীপুরের শ্রীপুরের ইউএনও রেহেনা আকতার, মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের ইউএনও মোহাম্মদ মাহমুদুল হক ও সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. সাবিরুল ইসলাম।

বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে ময়মনসিংহের ত্রিশালের ইউএনও মো. আবুজাফর রিপন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. এরশাদ উদ্দিন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জিল্লুর রহমান আনম, সহকারী প্রোগ্রামার মুহাম্মদ মনিরুল ইসলাম ও উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা জান্নাতুল ফেরদৌস দলগত পদক পান।

একই পদক পান নাটোরের ডিসি শাহিনা খাতুন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. রাজ্জাকুল ইসলাম, নাটোর সদরের ইউএনও মোছা. জেসমিন আকতার বানু, নাটোর গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. জাহিদুল ইসলাম, নেজারত ডেপুটি কালেক্টর অনিন্দ্য মণ্ডল; চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শওকত ওসমান, সদরের সাবেক ইউএনও মোহাম্মদ মাহবুবুল আলম মজুমদার, ইউএনও বৈশাখী বড়ুয়া; ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গার ইউএনও মো. আবদুল মান্নান, শিক্ষা অফিসার মো. আবদুর রহমান, সহকারী প্রোগ্রামার মো. লিয়াজ মাহমুদ লিমন। আর প্রাতিষ্ঠানিকভাবে এ পদক পায় গ্রিসের বাংলাদেশ দূতাবাস।

জাতীয় পর্যায়ে কারিগরিতে ব্যক্তিগত পদক পান নীলফামারী জলঢাকা উপজেলার সাবরেজিস্ট্রার শাহজাহান আলী, চাঁদপুরের সাবেক ডিসি মো. মাজেদুর রহমান খান এবং রাজশাহী জেলার দুর্গাপুরের ইউএনও মো. আনোয়ার সাদাত। এই ক্যাটাগরিতে দলগত পদক পান মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) এনএম জিয়াউল আলম, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এটুআই সার্ভিসের সাবেক পরিচালক (বর্তমান পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব) কবির বিন আনোয়ার, পরিচালক আবদুল মান্নান, মোহাম্মদ লুৎফর রহমান ও এটুআইয়ের ন্যাশনাল কনসালটেন্ট খালিদ মেহেদী হাসান।

একই পদক পান ভূমি সংস্কার বোর্ডের চেয়ারম্যান (সচিব) মো. মাহফুজুর রহমান, ভূমি সংস্কার বোর্ডের সহকারী কমিশনার রেজাউল কবীর, এটুআই ন্যাশনাল কনসালটেন্ট মোহাম্মদ এনামুল হক, কুড়িগ্রাম জেলার সাবেক প্রশাসক ও প্রকল্প পরিচালক এবিএম আজাদ, এম নুরুল আমিন, আবু ছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস, কুড়িগ্রামের সাবেক সহকারী কমিশনার মো. আবদুল ওয়ারেছ আনছারী, সাবেক অতিরিক্ত কমিশনার (সার্বিক) রফিকুল ইসলাম সেলিম, জেলা সদর উপজেলার ইউএনও মো. আল আমিন পাল পারভেজ।

আর প্রতিষ্ঠান হিসেবে এই পদক পায় বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড ও বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র (বিটাক)।

Filed in: জাতীয়