Thursday December 13, 2018

ইন্দোনেশিয়ায় শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ১০

1121 ইন্দোনেশিয়ায় শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ১০ইন্দোনেশিয়ায় পর্যটনের জন্য জনপ্রিয় দ্বীপ লোমবোকে ৬.৪ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত এনেছে। এতে অন্তত ১০ জন নিহত হয়েছে। এতে অনেক ঘর-বাড়ি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থার বরাত দিয়ে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

আজ রোববার শক্তিশালী এই ভূমিকম্প আঘাত হানে। ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিলো দ্বীপটির মূল শহর মাতারাম থেকে ৮০ মাইল উত্তর-পূর্বাঞ্চলে। সেখানে এই মাত্রার ভূমিকম্পকে খুবই শক্তিশালী বিবেচনা করা হয়। এতে অনেক ক্ষয়ক্ষতির সম্ভাবনা থাকে।

ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগ প্রশমন বিভাগের মুখপাত্র সুতোপো পুরো নুগোরহো ভূমিকম্প-পরবর্তী সময়ের একটি ছবি টুইট করেছেন। যেখানে দেখা যাচ্ছে, একটি ভবনের ছাদ ও দেয়ালের একটি অংশ ধসে পড়েছে।

মুখপাত্র জানান, ভূমিকম্পের পর আতঙ্কিত লোকজন রাস্তায় ও খোলা মাঠে অবস্থান নেয়। এখন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে উদ্ধার কাজ চালানো। আহতদের স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

ইন্দোনেশিয়ার জনপ্রিয় পর্যটনকেন্দ্র বালি দ্বীপেও ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। পর্বতারোহীদের কাছে জনপ্রিয় পাশের রিনঝনি ন্যাশনাল পার্কেও এই কম্পন অনুভূত হয়েছে। ভূমিধসের আশঙ্কায় ভূমিকম্পের পর পরই পর্বতারোহণ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে জানান ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগ প্রশমন বিভাগের মুখপাত্র সুতোপো পুরো নুগোরহো।

এর আগে, ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে দেশটিতে একইমাত্রার ভূমিকম্পে অন্তত তিনজনের প্রাণহানি ঘটেছিল। ভৌগোলিকভাবে ভূমিকম্পপ্রবণ এলাকায় অবস্থিত হওয়ায় ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিকম্প বা সুনামির আঘাত নতুন নয়। প্রশান্ত মহাসাগরীয় অগ্নিবলয়ের মধ্যে দেশটির অবস্থান। ২০০৪ সালে ইন্দোনেশিয়ায় ৯.৩ মাত্রার একটি শক্তিশালী ভূমিকম্প ও সুনামি আঘাত হানে। এতে নিহত হন কয়েক হাজার মানুষ।

Filed in: আন্তর্জাতিক