Monday October 15, 2018

বিশাল বাজেট বাস্তবায়ন বড় চ্যালেঞ্জ: এফবিসিসিআই

173 বিশাল বাজেট বাস্তবায়ন বড় চ্যালেঞ্জ: এফবিসিসিআই

ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই’এর সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেছেন, বাজেট বাস্তবায়নে বছরের শুরু থেকেই সুষ্ঠু মনিটরিং জোরদার করা জরুরি। বাজেট বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে দক্ষতা, স্বচ্ছতা এবং জবাবদিহিতা এবং তদারকের মান নিশ্চিত করতে হবে। অন্যথায় এই বিশাল বাজেট বাস্তবায়ন একটি বড় চ্যালেঞ্জ হবে।

আজ শনিবার দুপুরে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেট নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

সংগঠনটির মতে, প্রতি বছর বড় বাজেট দেয়া হচ্ছে। কিন্তু পরে সংশোধন করতে হচ্ছে। বাজেট বাস্তবায়নের হার বাড়াতে বছরের শুরু থেকেই সুষ্ঠু মনিটরিং জোরদার জরুরি। একই সঙ্গে বাজেট বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে দক্ষতা, স্বচ্ছতা, জবাবদিহি এবং তদারকের মান নিশ্চিত করা উচিত। তা না হলে বাজেট বাস্তবায়ন বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখা দেবে।

শফিউল ইসলাম বলেন, আজকের দিনে করমুক্ত আয়ের সীমা দুই লাখ পঞ্চাশ হাজার টাকা মোটেই যৌক্তিক না। আজকের দিনে জীবন যাত্রার ব্যয়ের কথা যদি বিবেচনা করি তাহলে এটি পাঁচ লাখ টাকা হওয়া উচিৎ। সেক্ষেত্রে আমরা তিন লাখ টাকা করার দাবি জানিয়েছিলাম।

ব্যাংকঋণের উচ্চসুদ কমিয়ে আনতে অর্থ মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ ব্যাংক তদারকি বাড়ানোর আহ্বান জানিয়ে মহিউদ্দিন বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটে ব্যাংকিং খাতে যেসব সুযোগ-সুবিধা দেয়া হয়েছে তাতে ঋণের সুদের হার সিঙ্গেল ডিজিটে নেমে আসবে আশা করছি। অর্থ মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ ব্যাংক তদারকি প্রতিষ্ঠান হিসেবে অবশ্যই এ ব্যাপারে কার্যকর ও বাস্তবভিত্তিক পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সমাজে দুই ধরনের খেলাপি আছে। প্রথমত ইচ্ছাকৃত খেলাপি। এরা ব্যাংকের টাকা নিয়ে আর ফেরত দিতে চায় না। এ ধরনের যারা ব্যাংকের টাকা লুটপাট করছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। এদের জন্য এফবিসিসিআই অ্যাডভোকেসি করবে না। দ্বিতীয়ত অনিচ্ছাকৃত খেলাপি। ব্যাংকের উচ্চসুদ, গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি, হরতাল-অবরোধের কারণে অনেক ভালো ব্যবসায়ীও খেলাপি হয়ে যাচ্ছেন। এদের গঠনমূলকভাবে সহায়তা দিতে হবে।

Filed in: অর্থ-বানিজ্য